Friday, July 17, 2015

Payza একাউন্ট ভেরিফাই হতে শুরু করে ব্যাংক একাউন্ট, উইথড্র, ডিপোজিত করা সহ নিয়মাবলী সব কিছু এই পোস্টে

সবাইকে সালাম ও মাহে রমজানের শুভেচ্ছা।
আজকের দিনের ২য় টিউনে আলোচনা হিসাবে থাকছে কিভাবে আপনার পেইজা একাউন্টকে ভেরিফাই করবেন এবং পেইজা হইতে যাবতীয় অর্থ ব্যাংকের একাউন্টে উইথড্র কিংবা ডিপোজিত করবেন।
বর্তমানে Payza কতটা জরুরী তা ব্যবহারকরী মাত্রই অবগত। কেননা, বাংলাদেশে যেহেতু পেপালের কার্যক্রম নাই সেখানে একটু হলেও গুরু দ্বায়িত্ব পালন করছে পেইজা। পেইজা সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নাই। এই বিষয়ে অসংখ্যক টিউন করা হয়েছে। বিশ্বের প্রায় ৯০ টির বেশী দেশে পেইজা কার্যক্রম আছে, সেই হিসাবে বাংলাদেশে এর আঞ্চলিক অফিস আছে। পেইজা একাউন্ট ক্রিয়েট করা খুব কঠিন কাজ নই। প্রায় ১ মিনিট সময় ব্যয় করেই এই একাউন্ট ওপেন করা যায়।

যাইহোক শুধু একাউন্ট থাকলে হবে না। একউন্টটি অবশ্যই ভেরিফাই হতে হবে। কেননা, ভেরিফাই করা না হলে আপনি পেইজা হইতে আপনার অর্থ ব্যাংকে ডিপোজিত কিংবা উত্তোলন করতে পারবেন না। একাউন্ট ভেরিফাইও খুব একটা কঠিন কাজ নই। একাউন্ট ভেরিফাই করতে আপনাকে ২ টি জিনিসের প্রয়োজন।
১। ভোটার আইডি   ২। ব্যাংকের ৬ মাসের স্টেটমেন্ট।

কিভাবে একাউন্ট ভেরিফাই করবেন?

১। প্রথমে আপনার পেইজা একাউন্টে লগইন করুন এখানে > বাম পাশের প্যানেল হতে verification অংশে যান > সেখানে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের কপি এবং অপর অংশে ব্যাংকের স্টেটমেন্ট অাপলোড করে পাঠিয়ে দিলেই হবে।
২। ভেরিফাই হইতে প্রায় ৪-৫ দিনের মত সময় নিবে। এবং এই বিষয়ে আপনার মেইলে বার্তা পাবেন। এবং ভেরিফাই হলে নিম্নোক্ত চিত্র দেখাবে-
Congratulations, your Payza account has been successfully verified.

(বি:দ্র- ভোটার আইডি এবং ব্যাংক স্টেটমেন্ট উভয়ই জিপিজি ফরম্যাটে স্ক্যান করে আপলোড করবেন। এবং আপনার ব্যাংকে গিয়ে একটি স্টেটমেন্ট কপি করে নিন। তাছাড়া ভোটার আইডি ও ঠিকানার সাথে মিল রেখে আপনার পেইজা একাউন্টের নাম, এড্রেস একই হতে হবে। উল্লেখ্য ব্যাংকে আপনার একাউন্টের নাম ভোটার আইডি কার্ডের নামের সাথে মিলতে হবে।

কিভাবে ব্যাংক একাউন্ট ভেরিফাই ও সংযুক্ত করবেন?

শুধু ব্যাংক একাউন্ট সংযুক্ত করলেই হবে না সেটি ভেরিফাই হতে হবে। পেইজা একউন্টে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত না থাকলে আপনার ব্যাংক একউন্ট যুক্ত করে নিন এখনি। এই জন্য Bank Accounts > Add Bank Account অংশে ক্লিক করে আপনার ব্যাংকের যাবতীয় তথ্যাদি দ্বারা পূরন করে নিন।

ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করা হলে আপনার পেইজা একাউন্ট হতে ক্ষুদ্র পরিমান অর্থ (যেমন: ০.১০ কিংবা ০.২৫ ডলার) আপনার ব্যাংক একাউন্টে প্রেরন করা হবে। এই ক্ষেত্রে অাপনার ব্যাংক স্টেটমেন্ট হতে জেনে নিন কত পরিমান অর্থ পেইজা হতে জমা হয়েছে। সুতরাং সেই পরিমানের অর্থ/সংখ্যাটি পরবর্তীতে আপনার পেইজা একউন্টে উল্লেখ করে দিলেই ব্যাংক একাউন্ট ভেরিফাইড হিসাবে সংযুক্ত হয়ে যাবে।

পেইজা হইতে কিভাবে অর্থ ব্যাংক একাউন্টে উইথড্র করবেন?

Wallet > Withdraw Funds অংশে যান > অাপনি কোন অপশনের মাধ্যমে উইথড্র করবেন যেমন-

Over the Bank Counter- এখানে সরাসরি ব্যাংক কাউন্টার হইতে টাকা উঠাতে শুধুমাত্র ৫০/- খরচ হবে। তবে এটা সব জেলাতে কাজ হবে না। ঢাকাতে কমার্স ব্যাংক এই সুবিধা প্রদান করে থাকে। তাই এই ক্ষেত্রে আপনাকে Bank Transfer অপশনটি বাছাই করতে হবে। সেখানে এমাউন্টের পরিমান/বিবরন লিখে কনফার্ম করলেই ৪/৫ দিনের মধ্যে আপনার ব্যাংক একাউন্টে অর্থ জমা হবে। এই ক্ষেত্রে ২৪০/- সার্ভিস চার্জ কর্তন যাবে। এই ক্ষেত্রে বড় এমাউন্ট লেনদেনের দিক হতে ভাল হয়।

এই যেমন- ৪-৫ দিন পূর্বে আমার একাউন্টে বিভিন্ন সাইট হতে আয়কৃত অর্থ বাংলাদেশী টাকাতে প্রায় ২,০৪৫/- জমা হয় সেখান হতে আমার ইসলামী ব্যাংক একাউন্টে ট্রান্সফার করলে ২৪০/- টাকা বাদ দিয়ে ১৮০৫/- টাকা জমা হয়েছে।

পেইজা একাউন্টে আমার উইথড্র ও যাবতীয় লেনদেনের প্রমানচিত্র

১।

২।

৩।

সারকথা

অাশা করি এই টিউটোরিয়ালটি অনুসরন করে আপনি নিজেই উপরোক্ত কাজগুলো করতে পারবেন। তারপরেও সমস্যা থাকলে টিউমেন্ট করতে পারেন। পরিশষে আজ এই পর্যন্তই! সবার সুস্থতা কামনা করে বিদায় নিচ্ছি এবং সবাইকে আবারো অগ্রীম ঈদের শুভেচ্ছা "ঈদ মোবারক"

0 comments :

Post a Comment

আপনার ভালো কমেন্টের জন্য লেখক কে আরো সুন্দর পোস্ট লিখতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

........................ম্যাসেজ......................

জিপি, বংলালিংক ফ্রি নেট এখনো চলছে । আপনি ও ট্রাই করুন আমাদের ফ্রি নেট এর পোস্ট গুলো পড়ুন।