Monday, March 16, 2015

আপনি কী মুভি ফ্রিক? নিজের লাইফকেও করতে চান মুভিময়? তাহলে এই পোস্ট টি মনে হয় আপনার জন্যই!!

হ্যালো টিউনার, টিউজেটর, টিউডার কেমন আছেন সবাই। আসুন একটু অনলাইনে ভিন্ন মজা নেই। একটু বিনোদন নিয়ে আসি এই প্রযুক্তি যুগের সাথে তাল মিলিয়ে। অসম্ভব ভালো লাগা কিছু ফিচার আছে আজকের এই টিউনে। আমি নিজে খুব ফ্যান এই জিনিস গুলার।
শত শত বছর ধরে মুভি আমাদের জীবনের একটা বড় অংশ হয়ে আছে। আমাদের সুখ-দুঃখের বড় সঙ্গী হল মুভি। এমনকি মুভি হল বিনোদনের আধুনিক জীবনের সবথেকে বড় মাধ্যম। ইতিহাসের প্রথম দিকের মুভি ছিল সায়লেন্ট ধরণের, ধীরে ধীরে এগুলা উন্নত উন্নত হতে হতে সাদা-কালো ধারন করে এবং পরবর্তীতে এগুলা রঙ্গিন আকারে আসতে থাকে। আর এখন তো আমরা আছি ব্লক-বাস্টার যুগে। তবে কখনোই মুভি মানুষকে এটা থেকে দূরে রাখি নি। বরং দিন দিন মানুষ এটির প্রতি ঝুকে গেছে। এখন আমরা আরও বেশি মুভির মতো হতে চাই। চাই তাদের মতো চরিত্র, পোশাক, প্রসাধনী, এমনকি নিত্য ব্যবহারযোগ্য জিনিসপত্রও।



মুভিময় জীবন ব্যবস্থা
আমি নিজেও অনেক সময় মুভি প্লেসগুলার প্রতি আকর্ষণ ফিল করি। দেখতে ইচ্ছা করে এক পলকের জন্য হলেও। আমরা আরও তাদের পোশাক-আশাকও ব্যবহার করতে চাই। কিন্তু আমরা সবাই জানি না কীভাবে এগুলা খুঁজে বের করবো। ঠিক একারনেই আজকের এই আয়োজন। আপনার জীবনকে আরও মুভিময় করতে আজকে আমার ক্ষুদ্র প্রয়াস। ভালো না লেগে যাবে কোথায়! তাহলে একটু রইয়ে-সইয়ে নিতে থাকুন ব্লক-বাস্টার সেই কালেকশনগুলো।

আপনার জীবনকে মুভিময় করার সবথেকে জনপ্রিয় রিসোর্সগুলোঃ

১) প্রিয় মুভি লোকেশনের সাথে একাত্ম হন দ্য টেকের (The Take) মাধ্যমেঃ


দ্য টেকে (The Take)
আপনি কি কখনো মুভি দেখতে দেখতে ভেবেছেন কি চমৎকার দৃশ্য বা কি চমৎকার চারপাশ, আমি যদি একটু যেতে পারতাম। আমি কিন্তু অনেক ভেবেছি। দেখা যাচ্ছে এটা সাহারা মরুভূমি বা লাস ভেগাসের একটি সমুদ্র সৈকত। আমার কিন্তু জানতে ইচ্ছা করতো কীভাবে ধারন করলো এই দৃশ্য। সেই সব মুহূর্ত। যেমন যখন হেরি শেলিকে কিস করলো, যখন প্রাইভেট রায়ান সেভ হল। এরকম এরকম। ঠিক এই সুযোগগুলোই আপনি পাবেন এই দ্য টেকের ওয়েব মানচিত্রে। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র যে নীল রঙের বৃত্ত আছে সেখানে আপনি দেখতে পাবেন কি মুভি ধারন করা হয়েছিল এই জায়গাতে। সাথে সাথে আপনি আপনার পছন্দের মুভিতে প্রবেশ করুন এবং দেখে নিন সেখানকার সেই কাঙ্ক্ষিত দৃশ্যটি। আপনি ইচ্ছা করলে একটু খরচ করে ঐ প্লেসটা থেকে ঘুরেও আসতে পারেন।

দ্য টেকে (The Take)

২) আপনার পছন্দের মুভির পোশাক এবং সাজ-সরঞ্জাম কিনুন রিল ক্লথসের (Reel Clothes) মাধ্যমেঃ

আপনি ম্যাট্রিক্স Matrix সিনেমা দেখে যদি ঐ সিনেমার পোশাকের প্রেমে পড়ে যান তাহলে কি করবেন? আপনার ইচ্ছা হতেই পারে লউরেন্স ফিসবার্নের লং লেদার জ্যাকেট টা কিনতে চাইতেই পারেন বা রিমলেসের সানগ্লাস। যদি এমন কোন পোশাক বা মুভি সরাঞ্জাম পছন্দ করেই ফেলেন তাহলে কি করবেন?

রিল ক্লথস (Reel Clothes)
আপনার চাহিদা বুঝেই রিল ক্লথস আপনাকে দিচ্ছে সেই সব পোশাক কেনার সুবর্ণ সুযোগ। আপনি অন্য ই-কমার্স সাইটের মতো এখানে সব ধরণের পণ্য পাবেন না। এখানে শুধু আপনি বিভিন্ন মুভির জনপ্রিয় সব পোশাক আশাকই পাবেন। লেটেস্ট সব মুভির এবং একটরের সব আপডেট পোশাকও পাবেন। একটর এবং মুভি এভাবে আপনি ক্যাটাগরি আকারেও দেখতে পারবেন আপনি।

রিল ক্লথসের (Reel Clothes)
যখনই আপনি আপনার পছন্দের কোন আইটেম পছন্দ করবেন, সাথে সাথে সেটা কিনে ফেলতে পারবেন। তবে আপনাকে সেজন্য একটু বেশিই পে করতে হতেই পারে।

৩) পছন্দের মুভির গান/মিউজিক সংগ্রহ করুন সাউন্ড ট্রাকস (soundtracks) থেকেঃ

মিউজিক একটি সিনেমার প্রাণ। বিশেষ কিছু মিউজিক, টিউন আলাদা করে দেয় এক একটা মুভিকে। অনেক মুভি সেই মিউজিক ছাড়া প্রাণ হীন মনে হয়। কিছু মুভি আমাদের প্রাণ ছুঁয়ে যায়। আমরা এই টিউন সংগ্রহে রাখতে চাই।

সাউন্ড ট্রাকস (soundtracks)
এইসব নতুন বা পুরাতন মিউজিক আপনি আপনার সংগ্রহে রাখতে পারেন এই সাউন্ড ট্রাকের মাধ্যমে। আপনি এখান থেকে সব ধরণের অপ্রতুল গান খুঁজে পাবেন নির্দ্বিধায়। ইন্টারনেট মুভি ডাটাবেজও একটি বড় কালেকশন, তবে সাউন্ড ট্রাক শুধু মিউজিকের জন্য বেশি জনপ্রিয়।

সাউন্ড ট্রাকস (soundtracks)

৪) পছন্দের মুভির পছন্দের কার কিনে নিন ইন্টারনেট মুভি কার ডাটাবেজ (Internet Movie Car Database) এর মাধ্যমেঃ

মুভিতে মিউজিক বা পোশাকের মতো কার ভাহিকেল একটা বড় পার্ট। আপনি বুলিট বা রুনিনের মতো উচ্চ গতির কার দেখছেন? অথবা একটা একশন মুভির কার দেখে পছন্দ হল। বা ট্রাশ হওয়া কার আপনার মনে ধরলো।

ন্টারনেট মুভি কার ডাটাবেজ (Internet Movie Car Database)
আপনি এইসব মুভির সংগ্রহ পাবেন ইন্টারনেট মুভি কার ডাটাবেজ (Internet Movie Car Database) এর মাধ্যমে। আপনি মুভি বা টিভি শোঁর কার গুলোর কারখানা বলতে পারেন এই সাইটটাকে। আপনি আপনার পছন্দের হিরোর চালানো কারের মালিক হতে পারবেন। তবে চাহিদা অনুসারে দামটাও একটু বেশি। তাছাড়া আপকামিং অনেক মুভির কারেরও সংগ্রহও পাবেন এখানে।

৫) মুভিতে আপনি এক্সট্রা হিসেবে অভিনয়ের সুযোগ নিন ব্যাকস্টেজের (Backstage) মাধ্যমেঃ

বিভিন্ন মুভি বা রিয়েলিটি শোঁতে আপনি পারফর্ম করতে পারেন এই সাইটের মাধ্যমে। অনেক সময় অনেক মুভিতে এক্সট্রা হিসেবে অনেক পার্সন প্রয়োজন হয়। প্রতিনিয়ত এই সাইটে সেটা পাবলিশ করা হয় জবের মতো করে। আপনি সেখান থেকে আপনার পছন্দের শোঁতে অংশগ্রহণ করতে পারেন।

ব্যাকস্টেজ (Backstage)
আপনি নিজের প্রোফাইলও বিল্ড করতে পারেন এই সাইটে। যাতে আপনি বিভিন্ন কলে ডাক পান। কিছু এক্সট্রা খরচও করতে হতে পারে আপনাকে ভালো কিছু করার জন্য। সে সুযোগও দিচ্ছে এই ব্যাকস্টেজ
আশা করি মুভিময় জীবন আপনাদের আরও সুন্দর হবে।
ধন্যবাদ সবাইকে।

0 comments :

Post a Comment

আপনার ভালো কমেন্টের জন্য লেখক কে আরো সুন্দর পোস্ট লিখতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

........................ম্যাসেজ......................

জিপি, বংলালিংক ফ্রি নেট এখনো চলছে । আপনি ও ট্রাই করুন আমাদের ফ্রি নেট এর পোস্ট গুলো পড়ুন।